ঘটনাস্থলে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। ফাইল ছবি

দিনাজপুরের বোচাগঞ্জে কথিত পীর মো. ফরহাদ হোসেন চৌধুরী ও তার নারী মুরিদ হত্যার ঘটনায় মূল হত্যাকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে দাবি করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)।

২০ মার্চ সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রংপুর র‍্যাব-১৩-এর কার্যালয়ে আয়োজিত এক ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানায় অধিনায়ক কমান্ডার এ টি এম আতিকুল্যাহ।

আটককৃত মো. শফিকুল ইসলাম ওরফে বাবু (২৮) বোচাগঞ্জের বাসিন্দা। আজ ভোরে কুড়িগ্রাম জেলার ভূরুঙ্গামারী থানার সীমান্তবর্তী এলাকা জয়মনিরহাট বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব কর্মকর্তা জানান, ফরহাদ ও রূপালী খুনের ঘটনাটি পুলিশের পাশাপাশি ছায়া তদন্ত করছে র‍্যাব। এই হত্যার ঘটনায় ইতোমধ্যে দুজন গ্রেফতার হয়ে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। এই জবানবন্দির ভিত্তিতে শফিকুলকে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় ইছহাক আলী (৫৭) নামে সন্দেহভাজন কথিত অপর এক পীরকে আটক করেছে পুলিশ। কুড়িগ্রামের পীর ইসহাক দিনাজপুর এসে বাবুর বাসায় থাকতেন। সেখানেই দিনাজপুরের পীর ফরহাদকে হত্যার পরিকল্পনা হয়। শফিকুল ইসলাম বাবুসহ চারজন হত্যাকাণ্ডে অংশ নেয়।

প্রসঙ্গত, ১৩ মার্চ রাতে বোচাগঞ্জ উপজেলার দৌলা গ্রামে কথিত পীর ফরহাদ হোসেন চৌধুরী (৬০) এবং তার নারী মুরিদ রূপালী বেগমকে (১৮) দুর্বৃত্তরা গলা কেটে এবং পরে গুলি করে হত্যা করে।