শাকিবের সঙ্গে গোপন বিয়ের খবর ফাঁস করে দিলেন অপু বিশ্বাস।

শাকিবের সঙ্গে গোপন বিয়ের খবর ফাঁস করে দিলেন অপু বিশ্বাস। সোমবার (১০ এপ্রিল) একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলকে সাক্ষাৎকার দেয়ার সময় অপু বলেন, ২০০৮ সালে ১৮ এপ্রিল আমাদের বিয়ে হয়েছে। শাকিবের ঢাকার বাসায় এই বিয়ে হয়। পরিবারের কাছের লোকজন সেই বিয়েতে উপস্থিত ছিলেন। বিয়ের সময় আমার নাম হয় অপু ইসলাম খান। শাকিবের ইচ্ছাতেই এত দিন বিয়ের বিষয়টি গোপন রাখা হয়েছে।

অপু আরও বলেন, শাকিবের ভালো চিন্তা করে এতদিন চুপ করেছিলাম। অনেক ছাড় দিয়েছি। ধৈর্য ধরতে ধরতে শেষ সীমানায় পৌঁছে গেছি। কারণ, সে আমাকে সবসময় ছোট করেছে। অনেক লাঞ্ছনা সহ্য করেছি। কিন্তু আর সইতে পারলাম না।

একপর্যায়ে অপু বিশ্বাস বলেন, অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর শাকিব আমাকে বলেছিল নিজেকে লুকিয়ে রাখতে। তাই লুকিয়েছিলাম। কিন্তু সন্তান হওয়ার সময় শাকিব আমার পাশে ছিল না। তবে ঢাকায় আসার পর সন্তানকে দেখতে আসে। সন্তানের সব খরচও দেয়। সর্বশেষ শনিবার (৮ এপ্রিল) রাতেও সে আমার সাথে দেখা করেছে। বাচ্চাকে আদর করেছে।

এতদিন এসব খবর আড়াল রাখার প্রসঙ্গে অপু বলেন, শাকিবের ক্যারিয়ার এখন তুঙ্গে। সে আমার স্বামী। এসব কথা জানাজানি হয়ে গেলে তার সম্মানহানি হবে, ক্যারিয়ারের ক্ষতি হবে, তাই চুপ করে ছিলাম। কিন্তু সে এখন যেটা করছে সেটা অন্যায়। আমাকে আমার যোগ্য সম্মানটা দিচ্ছে না। আমি আর এই যন্ত্রনা সইতে পারছি না।

উল্লেখ্য, ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল শাকিবের সঙ্গে আমার বিয়ে অপুর। বিয়েতে শাকিব ছাড়াও উপস্থিত ছিল তার মা, চাচাতো ভাই ও আমার মা। খুব গোপনে বিয়ে হয়। ফরিদপুর থেকে কাজী রেজিস্ট্রি করে বিয়ে করানো হয়।

শাকিব-অপুর সংসারে ৮ মাস বয়সী এক ছেলে সন্তান রয়েছে। ছেলের নাম আব্রাহাম খান জয়। গত বছরের ২৭ সেপ্টেম্বর কলকাতার একটি ক্লিনিকে তার জন্ম হয়।

 

Share Button