SEO (Search Engine Optimization) কত প্রকার ও কি কি?

বিভিন্ন ওয়েবসাইটে বিভিন্ন আর্টিকেল বা প্রত্যেক SEO & Expert এসইও এর প্রকারভেদ সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য উল্লেখ করেছেন। আমি বলবো না সেগুলো ভুল। অনেক SEO Expert এসইও এর প্রকারভেদ সম্পর্কে দ্বিমত পোষণ করে থাকেন।

তাহলে চলুন দেখা যাক, SEO কত প্রকার কি কি?

 

কাজের পদ্ধতি অনুসারে এসইও সাধারণত তিন প্রকার। যথাঃ

 

. হোয়াইট হ্যাট (White Hat SEO)

. ব্ল্যাক হ্যাট(Black Hat SEO) 

. গ্রে হ্যাট  (Gray Hat SEO)

 

হোয়াইট হ্যাট SEO :

SEO বা Search Engine Optimization- এর যে পদ্ধতি কোনো প্রকার স্পামিং না করে সঠিক নিয়ম অনুসারে সার্চ ইঞ্জিন গুলতে কি-ওয়ার্ড র্যাংক করা হয় তাকে হোয়াইট হ্যাট এসইও বলে। কাজের উপর ভিত্তি করে হোয়াইট হ্যাট এসইও কে আবার দুই ভাগে ভাগ করা যায়। যথাঃ

 

. অন পেজ (On page SEO)  

. অফ পেজ (off page SEO)

 

অন পেজ SEO : 

একটি ওয়েবসাইটের বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিনে র্যাংক করানোর উদ্দেশ্যে অভ্যন্তরীণ যে সব কাজ করা হয় তাকে অন পেজ এসইও বলে। অন পেজ এসইও এর জন্য যে কাজগুলো করতে হয় সেগুলো হলোঃ-

 

1,keyword research

2,Compititor analysis

3,Yoast SEO plugin Setup

4,Google analytics

5,Google Webmaster tools

6,meta title.

7,meta description

8,img alt tag

9,URL optimization

10,Domain research finalization and setup domain hosting.

12,Create SEO friendly navigation and menu

13,XML site map

14,Robot.Txt

15, HTML Tag H1, H2 and H3

16, NO-follow, DO-follow

17,Internal linking And External Linking

 

অফ পেজ SEO :

যে কোনো ওয়েবসাইটের প্রচার এবং জনপ্রিয়তা বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন ওয়েবসাইটে URL Share, Link Building এবং যে প্রচারনা করা হয় তাকে অফ পেজ এসইও বলে।

 

অফ পেজ এসইও এর জন্য যে কাজগুলো করতে হয় সেগুলো হলঃ-

 

1,Social bookmarking

2,forum posting

3,answers posting

4,Directory submission

5,Article submission

6,web 2.0

7,Doc Share

8,PBN

9,Guest Post

10,Video submission

11,slide share

12,Link roundup

13,Broken linkbuilding

14,Resource linkbuilding

15,Image Submission

16,add posting

17,Email Marketing

18,voice submission

19, Link Exchange

 

ব্ল্যাক হ্যাট SEO:

যে পদ্ধতিতে সার্চ এঞ্জিন গুলোকে বোকা বানিয়ে কোনো কোনো পেজ কে র;্যাংক করা হয় তাকে ব্ল্যাক হ্যাট SEO বলে।

ব্ল্যাক হ্যাট এসইওএর জন্য কিছু পদ্ধতি দেওয়া হলোঃ-

 

  1. Doorway Page 
  2. Keyword Stuffing
  3. Invisible Article
  4. Duplicate Content
  5. Paid Backlink

 

 

গ্রে হ্যাট SEO:

ব্ল্যাক হ্যাট এসইও এবং হোয়াইট হ্যাট এসইওএর সংমিশ্রিত প্রক্রিয়াকেই বল হয় গ্রে হ্যাট এসইও।

ট্রাফিক বা ভিসিটরের উপর ভিত্তি করে Search Engine Optimization কে দুই ভাগে ভাগ করা যায়। যথাঃ

 

১। পেইড (Paid) এসইও

এটার মাধ্যমে ওয়েবসাইটাকে খুব দ্রুত গুগলের ফ্রন্ট পেজের টপে (Top) নিয়ে  আসা যায় । এই ধরনের এসইও টাকা দিয়ে করা হয় গুগল অ্যাডওয়ার্ডস (Google adwords) এর মাধ্যমে।

 

২। অরগানিক (Organic) এসইও

এটা একটা ফ্রী ও খুব দীর্ঘ প্রসেস। ওয়েবসাইটকে গুগলের ফ্রন্ট পেজে (Front Page) নিয়ে আসতে অনেক সময় লাগে। প্রসেসটা দীর্ঘ। কিন্তু এটা ফ্রী হওয়ার কারনে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়। এটার মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইট বা ক্লাইন্টের ওয়েবসাইটে খুব সহজে ভিসিটর (Visitor) নিয়ে আসতে পারবেন।

 

Share Button